রাজ্য বার্তা

মৃত ব্যক্তির চিতায় জ্বলন্ত বালিশ থেকে উদ্ধার ৫০০ টাকার আধপোড়া বান্ডিল

নিউজ ডেস্ক: শ্মশানের জ্বলন্ত চিতায় উদ্ধার ৫০০ টাকার আধপোড়া নোটের বান্ডিল। জ্বলন্ত চিতায় মৃতের বালিশের মধ্য থেকে উদ্ধার হয় আধপোড়া টাকার বান্ডিল।

এই আধপোড়া টাকা নিয়েই যেন এখন ঘোর বিপাকের মধ্যে মৃতের পরিজনেরা। জানা গিয়েছে এই আধপোড়া ৫০০ টাকার নোটের বান্ডিলের মালিক ঘোজাডাঙার বাসিন্দা ৬০ বছরের নিমাই সর্দার। মৃত ব্যাক্তির ছেলে পঞ্চানন সর্দার জানিয়েছেন, গত রবিবার তাঁর বাবা পরলোক গমন করেন। সেই মতন বাবার মৃত্যুর পর তাঁকে সত্‍কার করতে স্থানীয় শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয়। পুরোহিত দিয়ে শ্মশানের সমস্ত ক্রিয়াকর্ম সেরে বাবাকে দাহ করার জন্য সমস্ত ব্যাবস্থা শুরু করেন ছেলে-সহ পরিবারের সদস্যরা।

বাবার ব্যবহারের বিছানার চাদর এবং তাঁর সঙ্গে সঙ্গে ব্যবহারের বালিশটাও তুলে দেওয়া হয় চিতার আগুনে। কিছু সময় আগুন জ্বলার পড়ে, পুড়ে যাওয়া বালিশের মধ্যে একটি ব্যাগ দেখতে পাওয়া যায় আর সেই ব্যাগের মধ্য থেকে উদ্ধার হয় টাকার বান্ডিল। ততক্ষনে চিতার আগুনে পুড়ে গিয়ে টাকার অনেকটাই ক্ষতি হয়ে যায়।

মৃতের পরিবারের অনুমান ভ্যান চালক নিমাই বাবু ভ্যান চালিয়ে চালিয়ে কাউকে কিছু না জানিয়েই বালিশের মধ্যেই তিলেতিলে উপর্জন করা অর্থ এভাবেই সঞ্চয় করে রেখেছিলেন। নিমাইয়ের সঞ্চিত অর্থের মধ্যে পুড়ে যাওয়ার পরেও বেচেঁ থাকা আধপোড়া ১৬ হাজার টাকা পরিবর্তন করে দেন হাবড়ার এক ব্যাক্তি। পরিবর্তন করে ১৬ হাজার টাকার বিনিময় ৭ হাজার ১৫০ টাকা তুলে দিলেন মৃতের ছেলে পঞ্চানন সর্দারের হাতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *