ফিল্মি বার্তা

নিঃশব্দে চলে গেলেন অভিনেত্রী শ্রীলা মজুমদার

নিউজ ডেস্ক: সকলের চোখের আড়ালে না ফেরার দেশে চলে গেলেন অভিনেত্রী শ্রীলা মজুমদার। ক্যানসারের কাছে হার হার মানল জীবন, প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীলা মজুমদার।

বিগত তিন বছর ৩ মাস ধরে ক্যানসারে ভুগছিলেন। শনিবার কলকাতায় তাঁর টালিগঞ্জের বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন অভিনেত্রী। বয়স হয়েছিল মাত্র ৬৫ বছর। শনিবার রাতেই কেওড়তলা মহাশ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় অভিনেত্রীর।

অভিনেত্রীর প্রয়াণে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এক্স হ্যান্ডেলে লেখেন, শীলা মজুমদার অত্যন্ত শক্তিশালী ও দক্ষ অভিনেত্রী ছিলেন। তাঁর মৃত্যু চলচিত্র জগতের অপূরনীয় ক্ষতি।

জরায়ুতে ক্যানসার রোগ বাসা বেঁধেছিল তাঁর। একাই লড়াই করছিলেন অভিনেত্রী শ্রীলা মজুমদার। কিন্তু মারণরোগের সঙ্গে লড়াই শেষ হল এদিন। না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন অভিনেত্রী। অভিনেত্রীর স্বামী এসএনএম আব্দি জানান,চলতি মাসের ১৩ থেকে ২০ পর্যন্ত টাটা মেডিক্যাল ক্যানসার সেন্টারে ভর্তি ছিলেন শ্রীলা। তার পর অভিনেত্রীকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। অভিনেত্রীর ছেলে সোহেল আব্দি পড়াশোনার সূত্রে লন্ডনে থাকেন। শেষ সময়ে মায়ের কাছে ছিলেন তিনি।

শেষ বার কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত পালান সিনেমায় শ্রীলাকে পর্দায় দেখা গিয়েছিল। ১৯৮০ সালে মৃণাল সেনের পরশুরাম ছবিতে কাজ করে অভিনয়ে হাতেখড়ি হয়ে শ্রীলা মজুমদারের। তারপর একের পর এক ছবিতে নিজের অভিনয়গুণে মুগ্ধ করে গিয়েছেন অভিনেত্রী। মৃণাল সেনের সঙ্গে ৬টি ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। একদিন প্রতিদিন, অকালের সন্ধানে, খারিজ, চোখের মতো ছবিতে অভিনয়ের ছাপ রেখেছেন তিনি। শ্যাম বেনেগালের পরিচালনায় কাজ করেছেন আরহণ, ‘মান্ডি’র মতো ছবিতে। ঋতুপর্ণ ঘোষের চোখের বালিতে ঐশ্বর্যকে কণ্ঠ দিয়েছিলেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *