জাতীয় বার্তারাজ্য বার্তালোকসভা নির্বাচন

গ্রীষ্মের প্রবল তাপের মধ্যে লোকসভা নির্বাচন, একাধিক পদক্ষেপ কমিশনের

নিউজ ডেস্ক: আগামী ১৯ এপ্রিল থেকে দেশে শুরু হচ্ছে লোকসভা ভোট। তিন মাস ব্যাপী নির্বাচনের সময়কাল গ্রীষ্মকাল। প্রখর রোদের তাপের মধ্যে হতে চলেছে নির্বাচন। ভোটগ্রহণের দিনগুলিতে অতিরিক্ত গরমে ভোটারদের যাতে কোনও অসুবিধা না হয় তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দিল নির্বাচন কমিশন।

চলতি বছরের লোকসভা নির্বাচন চলবে ১ জুন পর্যন্ত। এবার সাত দফায় হবে নির্বাচন। ৪ জুন হবে ফল ঘোষণা। এই সময়কালে কেউ যাতে ভোট দিতে গিয়ে গরমের কারণে অসুস্থ না হয়ে পড়েন, তা নিয়েই কমিশন বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে।

কমিশন তরফ থেকে জানানো হয়েছে-

১.গরমে ভোটারদের জন্য পানীয় জলের ব্যবস্থা থাকবে।
২.শৌচাগারের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে ভোট কেন্দ্রে।
৩.ভোটকেন্দ্র কোনও উপরের তলায় নয়, নীচতলায় করতে হবে।
৪.প্রত্যেক পোলিং টিমের সঙ্গে একটি মেডিকেল কিট দেওয়া হচ্ছে।
৫.এছাড়া সেক্টর অফিস সহ এলাকার স্থানীয় হাসপাতালে চিকিত্‍সার ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে।
৬.কোনও ভোটারের বাড়ি থেকে তাঁর ভোটকেন্দ্র ২ কিলোমিটারের বেশি হবে না। একমাত্র পাহাড়ি এলাকার ক্ষেত্রে দূরত্ব একটু বেশি হতে পারে।

এইসবের পাশাপাশি, প্রতিবন্ধী, অন্তঃসত্ত্বা এবং প্রবীণ নাগরিকদের জন্য ভোট কেন্দ্রে Polling Station বসার ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে রোদে ভোটারদের দাঁড়িয়ে থাকতে যাতে সমস্যা না হয়, তার জন্য ভোটারদের মাথার উপরে অস্থায়ী ছাউনি করতে বলা হয়েছে। মায়েরা শিশু কোলে নিয়ে ভোট দিতে গেলে শিশুদের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রতি কেন্দ্রে একজন করে স্বেচ্ছাসেবক রাখতে হবে।

অন্যদিকে, গ্রীষ্মের প্রখর রোদে সানস্ট্রোক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও থাকে। সেরকম কিছু হলে ভোটারকে দ্রুত ভোট কেন্দ্রের ঠান্ডা জায়গায় শুইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া ওআরএসের মতো পানীয় খাওয়ানোর ব্যবস্থা করতে হবে। সংশ্লিষ্ট ভোটারের অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাকে হাসপাতালে ভরতির ব্যবস্থা করতে হবে আধিকারিকদের। সব মিলিয়ে ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে ভোটারদের যাতে কোনও রকমের অসুবিধা না হয় সে বিষয়েই জোর দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *