আন্তর্জতিক বার্তা

পোরশায় কবর থেকে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এক অফিস সহায়কের লাশ উত্তোলন

মোজাহারুল ইসলাম,নওগাঁ: প্রায় চার মাস পর নওগাঁর পোরশা উপজেলার সোমনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহায়ক মোকসেদ আলী(৫০) এর লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চলের সৃষ্টি হয়েছে।

মঙ্গলবার ২০ ফেবরুয়ারী ২০২৪ইং দুপুর ১২টায় উপজেলার সোমনগর {দেউপুরা) গ্রামের কবর স্থান থেকে তার লাশ উত্তোলন করা হয়। এসময় এ্যক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মনিরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন। জানা গেছে, অফিস সহায়ক মোকসেদ আলী পিতা-নুর- মোহাম্মাদ গ্রাম-দেউপুরা গত বছরের ৬ নভেম্বর দিবাগত রাতে মারা যান। স্ট্রোকজনিত কারনে মোকসেদের মৃত্যু হয়েছে বলে তার স্ত্রী প্রকাশ করেন। সে কারনে পরের দিন মঙ্গলবার জোহরের নামাজের পরে সোমনগর মসজিদে মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে স্থানীয় কবর স্থানে তাকে দাফন করা হয়েছিল।

এই ঘটনার কিছুদিন পরে লোক মুখে তার স্ত্রীর পরকিয়ার কাহিনী জানাজানি হলে তার বোন সাপাহার উপজেলার মামুরিয়া গ্রামের শফিউদ্দিনের স্ত্রী হাসিনা বেগম তার ভাইয়ের মৃত্যুকে স্বাভাবিক নয় দাবি করে। নওগাঁ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মোকসেদ আলীর স্ত্রী আমেনা জান্নাতুন (৩২) ও একই গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে মিজানুর রহমান (৩০)কে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় থানা পুলিশ মিজানুর রহমান এবং ঔ গ্রামের লোকমানের ছেলে রহমত আলীকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন এবং মোকসেদের স্ত্রী আমেনা জান্নাতুন আদালতে সত্যতা স্বীকার করে আত্মসমর্পন করেন। আদালতে মামলার শুনানি শেষে আদালত মোকসেদ আলীর লাশ কবর থেকে তুলে ময়না তদন্তের জন্য নির্দেশ দেন। ফলে ম্যাজেস্ট্রিটের উপস্থিতিতে তার লাশ উত্তোলন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *