রাজ্য বার্তা

বাস্তবে বেঁচে থেকেও প্রশাসনের খাতায় মৃত, বন্ধ লক্ষ্মীর ভান্ডার

নিউজ ডেস্ক: সম্পূর্ণ সুস্থ গৃহবধূ, দিব্যি হেঁটে চলে বেড়াচ্ছে প্রতিনিয়ত গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে শুরু করে ব্লক প্রশাসনের দারস্ত হয়েছেন, তবুও প্রশাসনের খাতায় তিনি মৃত। প্রায় এক বছর ধরে বন্ধ লক্ষীর ভান্ডারের টাকা। এমন ঘটনার সাক্ষী ঘটনা পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল ব্লকের সুলতানপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কুরান গ্রাম।

গ্রামের বাসিন্দা দিপালী মান্ডির দাবি কয়েক মাস আগে তিনি জানতে পারেন তার লক্ষীর ভান্ডারের টাকা আসছে না। ২০২৩ সালের মার্চ মাস থেকে লক্ষীর ভান্ডারে টাকা পাচ্ছেনা সে। আধার কার্ডের নাম্বার ধরে তথ্য যাচাই করতে গিয়ে দেখেন আধার কার্ড নাম্বার শো করলে সেখানে দেখানো হচ্ছে দিপালী মৃত। তাই তিনি নিজেকে জীবিত প্রমাণের জন্য গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান থেকে শুরু করে ব্লক প্রশাসন সকলের কাছে প্রতিনিয়ত ছুটছেন লিখিত আবেদন জানিয়েছেন, কিন্তু লক্ষীর ভান্ডারে এখনো জীবিত হয়নি দিপালী। তাই লক্ষ্মীর ভান্ডারের হাজার টাকা করে না পাওয়ায় চরম সমস্যায় পড়েছে দিপালী।

যদিও এ বিষয়ে সুলতানপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান কৌশিক জানা বলেন বিষয়টি নিয়ে আমরা ব্লক প্রশাসন থেকে শুরু করে মহকুমা প্রশাসন সকলকে জানিয়েছি, আশা করি দ্রুত সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। এখন দেখার দিপালীর কবে নিজেকে জীবিত প্রমাণ করে লক্ষীর ভান্ডারের হাজার টাকা পায় প্রতি মাসে।

রিপোর্টার: শান্তনু পান, পশ্চিম মেদিনীপুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *