জাতীয় বার্তারাজ্য বার্তালোকসভা নির্বাচন

লোকসভা নির্বাচনে চতুর্থ দফায় অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার লড়াই সাত জন প্রাক্তন সাংসদের

নিউজ ডেস্ক: চতুর্থ দফার নির্বাচনে সোমবার লড়াইয়ে নেমেছেন সাতজন প্রাক্তন সাংসদ। এঁরা হলেন বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী, বিজেপির রানাঘাটের সাংসদ জগন্নাথ সরকার, বিজেপির বর্ধমান পূর্বের সাংসদ কিন্তু আসানসোলের প্রার্থী সুরেন্দ্র সিংহ আলুওয়ালিয়া, বিজেপির মেদিনীপুরের সাংসদ তবে এই বছর বর্ধমান পূর্বের প্রার্থী দিলীপ ঘোষ, তৃণমূলের বোলপুরের সাংসদ অসিত মাল, কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্র, আসানসোলের সংসদ শত্রুঘ্ন সিন্হা ও শতাব্দী রায়।

এঁরা প্রত্যেকেই গত বারের নির্বাচিত সাংসদ। অধিকাংশই নিজের কেন্দ্র থেকে লড়ছেন। শুধু আলুওয়ালিয়া তাঁর বর্ধমান পূর্ব আসন ছেড়ে প্রার্থী হয়েছেন আসানসোলের। অন্য দিকে মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ দিলীপকে এ বার নিয়ে আসা হয়েছে গতবারের আলুওয়ালিয়ার কেন্দ্র বর্ধমান পূর্বে।

চতুর্থ দফার ভোটে নিজেদের প্রমাণ করার লড়াইও লড়বেন কয়েকজন। এঁরা হলেন, কৃ্ষ্ণনগরের বিজেপি প্রার্থী অমৃতা রায়, যিনি কৃষ্ণনগরের রানিমা। প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেট তারকা তথা তৃণমূলের বর্ধমান পূর্বের প্রার্থী কীর্তি আজাদ, বহরমপুরের তৃণমূল প্রার্থী এবং ভারতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার ইউসুফ পাঠান। এঁদের মধ্যে রানিমা এবং পাঠান দু’জনেই রাজনীতিতে হাতেখড়ি দেওয়ার পরেই লোকসভা ভোটের ময়দানে নেমে পড়েছেন। তবে কীর্তি রাজনীতিতে নতুন নন। এর আগে তৃণমূলের হয়ে গোয়ার দায়িত্ব সামলেছেন তিনি।

সোমবারের ভোটে মোট ৭৫ জন প্রার্থী নামছেন ভোটযুদ্ধে। এঁদের মধ্যে তৃণমূলের ৮ জন, বিজেপির ৮, বিএসপির ৮, কংগ্রেসের ২, সিপিআইএমের ৬, অন্যান্য ২১ এবং নির্দল প্রার্থীর সংখ্যা ২০ জন। ৭৫ জন প্রার্থীর মধ্যে পুরুষ প্রার্থীর সংখ্যা ৫৯। মহিলা প্রার্থী ১৬ জন। আটটি কেন্দ্রের মধ্যে প্রার্থী সংখ্যায় সবচেয়ে বেশি এগিয়ে বহরমপুর। বিদায়ী সংসদ অধীরের কেন্দ্রে মোট ভোট প্রার্থীর সংখ্যা ১৫। অন্য দিকে, প্রার্থী সংখ্যায় সবচেয়ে পিছিয়ে রয়েছে রানাঘাট, বর্ধমান পূর্ব এবং আসানসোল। এই তিন কেন্দ্রেই সাত জন করে প্রার্থী রয়েছেন।

এদিন ভোট হচ্ছে ১৫ হাজার ৫০৭টি বুথে। এর মধ্যে বহরমপুরে ১৮৭৯টি বুথ, কৃষ্ণনগরে ১৮৪১, রানাঘাটে ১৯৮৩, বর্ধমান পূর্বে ১৯৪২, বর্ধমান-দূর্গাপুরে ২০৩৯, আসানসোলে ১৯০১, বোলপুরে ১৯৭৯ এবং বীরভূমে ১৯৪৩টি বুথ রয়েছে। তবে এই ১৫,৫০৭টি বুথের মধ্যে নির্বাচন কমিশনের হিসাবে স্পর্শকাতর বুথ ৩৬৪৭টি। ৭৯১টি বুথ সম্পূর্ণ মহিলা নিয়ন্ত্রিত। মডেল বুথ ৫৭টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *