মহানগর বার্তা

কল্লোলিনী তিলোত্তমার পথ হবে মিশ্রণ, হতে চলেছে ওয়াটারপ্রুফ রাস্তা

নিউজ ডেস্ক: রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কলকাতার বাসিন্দাদের যে সকল অভিযোগ রয়েছে তার মধ্যে একটি বড় অভিযোগ হল রাস্তায় জল জমা। কলকাতার বাসিন্দাদের অভিযোগ, কয়েক ফোঁটা বৃষ্টি হলেই কলকাতার বিভিন্ন রাস্তায় জল জমে যায়। জল জমে যাওয়ার ফলে যেমন রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাতায়াত করার ক্ষেত্রে নানান অসুবিধা হয় ঠিক সেই রকমই অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় যানবাহনদেরও।

এছাড়াও এইভাবে জল জমে যাওয়ার ফলে দুর্ঘটনার প্রবণতা যেমন বাড়ে ঠিক সেই রকমই আবার নানান ধরনের রোগ জীবাণু ছড়িয়ে পড়ার প্রবণতাও বৃদ্ধি পায়। কলকাতার বাসিন্দাদের বারংবার এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এবার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার নড়েচড়ে বসলো। রাজ্য সরকার একেবারে ওয়াটারপ্রুফ রাস্তা তৈরি করার পদক্ষেপ নিতে চলেছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে খুব তাড়াতাড়ি এই ধরনের রাস্তা কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় দেখা যাবে বলেই আশা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই এই ধরনের রাস্তা তৈরি করার জন্য তদারকিও হয়ে গিয়েছে বলে সূত্রের খবর।

কোন কোন রাস্তার হাল ফেরাতে হবে এই নিয়ে তদারকি দুর্গাপুজোর আগেই শেষ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। এমনকি এই তদারকির জন্য খোদ ময়দানে নেমে ছিলেন কলকাতা কর্পোরেশনের মেয়র ফিরহাদ হাকিম। এছাড়াও তদারকির জন্য তার সঙ্গে ছিলেন অন্যান্য আধিকারিকরাও। এক্ষেত্রে এই রেকি চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ থেকে শুরু করে শ্যামবাজার, উল্টোডাঙ্গা, শিয়ালদহ বিদ্যাপতি সেতু, মল্লিকবাজার, বালিগঞ্জ ফাঁড়ি, গোলপার্ক, টালিগঞ্জ ফাঁড়ি, জেমস নং সরণি হয়ে জোকা, একবালপুর হয়ে হাজরায় শেষ হয়।

এইরকম রাস্তা তৈরি করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে ইকবালপুর সংলগ্ন ডায়মন্ড হারবার রোডের একটি অংশে। কি কি মিশ্রণ দিয়ে তৈরি করা হবে এমন ওয়াটারপ্রুফ রাস্তা? ওয়াটারপ্রুফ এমন রাস্তা তৈরি করার জন্য বিটুমিন, স্টোন চিপস এবং বালির সঙ্গে মেশানো হবে গ্রেনিউইলস। এমন উপাদান তৈরি করা হবে নির্দিষ্ট তাপমাত্রার উপর মিশ্রণ মিশিয়ে। এমনিতে রাস্তা তৈরি করার ক্ষেত্রে পিচ এবং পাথরের মিশ্রণ অনেক মজবুত হলেও তাদের শত্রু হলো জল। যে কারণে জল পড়লেই রাস্তা খারাপ হয়ে যায়। এমন পরিস্থিতিতে সমাধান খুঁজতেই নতুন এই মিশ্রণ দিয়ে রাস্তা তৈরি করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *