রাজ্য বার্তা

দক্ষিণ দিনাজপুরে মেডিকেল রিপ্রেজেন্টদের বিক্ষোভ ও ধর্মঘট

নিউজ ডেস্ক: ওয়েস্ট বেঙ্গল মেডিকেল সেলস রিপ্রেজেন্টিভ ইউনিয়নের উদ্যোগে তথা FMRAI ও WBMSRU দক্ষিণ দিনাজপুর ইউনিটের পক্ষ থেকে বুধবার দুপুরে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা সহ গঙ্গারামপুরে বিভিন্ন ওষুধের দোকানের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ ও ধর্মঘট পালন করল মেডিকেল রিপ্রেজেন্টিভের সদস্যরা।

উল্লেখ্য, বুধবার এক দিনব্যাপী সারা ভারতবর্ষ জুড়ে মেডিকেল রিপ্রেজেন্টটিভদের এই বিক্ষোভ কর্মসূচি ও ধর্মঘট চলছে। সে মতো অবস্থায় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন জায়গা সহ গঙ্গারামপুরের বিভিন্ন ওষুধের দোকানের সামনে মেডিকেল রিপ্রেজেন্টে সদস্যরা বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করার পাশাপাশি ধর্মঘট করল। জানা গিয়েছে, কেন্দ্র সরকারের বিভিন্ন ওষুধের উপর অতিরিক্ত জিএসটি কর ওষুধের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ সহ আরও বিষয় নিয়ে এই দিন তারা সারা ভারতবর্ষ সহ রাজ্য ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা ও গঙ্গারামপুরে একদিনব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি ও ধর্মঘট পালন করল।

এদিন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুরের বাসস্ট্যান্ড চত্বর সহ সারা শহরের বিভিন্ন ওষুধের দোকানের সামনে এই চিত্র দেখা গেল। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা মেডিকেল রিপ্রেজেন্টটিভ ইউনিয়নের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। তারা হলেন, সুব্রত ভট্টাচার্য (সাধারণ সদস্য), জহিরুল ইসলাম, সুভাষ সাহা, বিশ্বজিৎ নন্দী, দেবা পাল, শুভ অধিকারী, রঞ্জন হালদার সহ আরো অন্যান্য মেডিকেল রিপ্রেজেনটিভের সদস্যরা। এই বিষয়ে বিশ্বজিৎ নন্দী নামে এক মেডিকেল রিপ্রেজেন্টটিভ সদস্য জানান, কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন ওষুধের উপর অতিরিক্ত জিএসটি কর বসানো ও ওষুধের দ্রব্যমূল্যের প্রতিবাদ সহ আরো নানান ইস্যু নিয়ে আজ আমরা সারা ভারতবর্ষ সহ আমাদের রাজ্যব্যাপী বিভিন্ন জেলায় জেলায় এই বিক্ষোভ কর্মসূচি ও ধর্মঘট পালন করা হচ্ছে।

এমত অবস্থায় আজ আমরা দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা সহ গঙ্গারামপুরে বিভিন্ন ঔষুধের দোকানের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি ও ধর্মঘট পালন করছি। যতদিন না পর্যন্ত ওষুধের উপর অতিরিক্ত জিএসটি কর ও কেন্দ্রীয় সরকারের এই বঞ্চনা সহ ওষুধের দ্রব্যমূল্য কম করা হবে ততদিন পর্যন্ত আমাদের এই আন্দোলন চলবে। বুধবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা সহ গঙ্গারামপুরে মেডিকেল রিপ্রেজেন্টটিভ সদস্যদের গঙ্গারামপুরের বিভিন্ন ওষুধের দোকানের সামনে তাদের বিক্ষোভ কর্মসূচি ও ধর্মঘটের চিত্র ধরা পরল।

রিপোর্টার: জয়দীপ মৈত্র,দক্ষিণ দিনাজপুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *