জাতীয় বার্তামহানগর বার্তারাজ্য বার্তা

পদ্মভূষণ সম্মান পেলেন বাংলার মিঠুন চক্রবর্তী, ঊষা উত্থুপ, বিজয়ন্তীমালা

নিউজ ডেস্ক: ভারতের পদ্মভূষণ সম্মানে ভূষিত হলেন বাংলার তথা বলিউড বর্ষীয়ান অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। বৃহস্পতিবার পদ্মসম্মান প্রাপকদের তালিকা প্রকাশ করে কেন্দ্রীয় সরকার। ১১০ জনকে পদ্মশ্রী সম্মান দেওয়া হয়েছে। সেখানে আট জন বাঙালি রয়েছেন।

বাংলার শিল্পী ঊষা উত্থুপও পদ্মভূষণ সম্মানে ভূষিত হয়েছেন। মরণোত্তর পদ্মভূষণ পেয়েছেন বাংলার সত্যব্রত মুখোপাধ্যায়। বাংলা থেকে যে আট জন পদ্মশ্রী পেয়েছেন, তাঁরা হলেন পুরুলিয়ার আদিবাসী পরিবেশকর্মী দুখু মাজি এবং ছৌ নাচের মুখোশ শিল্পী নেপালচন্দ্র সূত্রধর। তিনি নেপাল ২০২৩ সালের প্রয়াত হয়েছেন। তিনি মরণোত্তর সম্মান পাবেন।

এ ছাড়াও বাংলার পদ্মশ্রীদের তালিকায় রয়েছেন কলকাতার মৃত্‍শিল্পী সনাতন রুদ্র পাল এবং বীরভূমের ভাদু শিল্পী রতন কাহার। বাংলা থেকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পদ্মশ্রী পেয়েছেন একলব্য শর্মা এবং নারায়ণ চক্রবর্তী। শিল্পে পদ্মশ্রী প্রাপকের নাম তাকদিরা বেগম এবং গীতা রায় বর্মণ।

এ বছর মোট পাঁচ জনকে সর্বোচ্চ সম্মান পদ্মবিভূষণ প্রদান করা হয়েছে। চিরঞ্জীবী, বেঙ্কাইয়া নাইডু ছাড়াও এই সম্মান পেয়েছেন তামিলনাড়ুর বিজয়ন্তীমালা বালি, বিহারের সমাজকর্মী বিন্দেশ্বর পাঠক (মরণোত্তর), তামিলনাড়ুর পদ্ম সুব্রহ্মনিয়ম।

পদ্মভূষণ দেওয়া হয়েছে ১৭ জনকে। এটি কেন্দ্রের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান। এই তালিকায় রয়েছেন কেরলের এম ফতিমা বিভী (মরণোত্তর), মহারাষ্ট্রের সাহিত্য সাংবাদিক হরমুসজি এন কামা, কর্নাটকের শিল্পপতি সীতারাম জিন্দল, মহারাষ্ট্রের চিকিত্‍সক অশ্বিনী বালচাঁদ মেহতা, মহারাষ্ট্রের রাম নায়েক, গুজরাতের চিকিত্‍সক তেজস মধুসূদন পটেল, কেরলের ওলানচেরি রাজাগোপাল, মহারাষ্ট্রের দত্তত্রয় অম্বদাস মায়ালু ওরফে রাজদূত, লাদাখের তোগদান রিনপোচে (মরণোত্তর), মহারাষ্ট্রের পেয়ারেলাল শর্মা, বিহারের চন্দ্রেশ্বর প্রসাদ ঠাকুর, তামিলনাড়ুর বিজয়কান্ত (মরণোত্তর) এবং মহারাষ্ট্রের কুন্দন ব্যাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *