পাঁচমিশেলিস্বাস্থ্য বার্তা

সোলেস গ্রুপ অফ্ কোম্পানীজ্ তরফে স্কুলে স্কুলে মেনস্ট্রুরেশন স্বাস্থ্যবিধি প্রচার

নিউজ ডেস্ক: সোলেস গ্রুপ অফ্ কোম্পানীজ্, একটি স্বনামধন্য ISO 9001:2015 প্রত্যয়িত সংস্থা, স্কুলে মেনস্ট্রুরেশন চলাকালীন হাইজিন ম্যানেজমেন্ট-এর জটিল সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে একটি যুগান্তকারী প্রচারাভিযান শুরু করার ঘোষণা করেছে। বিশেষত অষ্টম এবং নবম শ্রেণীর ছাত্রীদের উপর লক্ষ্য রেখে এই প্রয়াস নেওয়া হয়েছে।

এই উদ্যোগটি মূলত ঋতুস্রাব কার্যকরভাবে পরিচালনা করার জন্য স্কুলছাত্রীদের জন্য নির্দেশিকা, সুযোগ-সুবিধা এবং উপকরণের উল্লেখযোগ্য অভাবের কথা বলা হয়েছে। এই প্রচারাভিযানের প্রাথমিক উদ্দেশ্য হল ঋতুস্রাবের সময় স্কুলছাত্রীরা যে সমস্ত পরিস্থিতির মুখোমুখি হয় সেই সম্পর্কিত সম্ভাব্য ঝুঁকি ও পরিণতি সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করা।

সোলেস গ্রুপ অফ্ কোম্পানীজ্-এর হেড অপারেশন্স, সঞ্জীব কুন্ডু, এই প্রচারণার প্রকৃত সারমর্মের উপর জোর দিয়ে বলেছেন, “এই প্রকল্পের জন্য আমাদের মূল লক্ষ্য এবং নীতিবাক্য শুধুমাত্র বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণের বাইরেও প্রসারিত। আমরা মেয়েদের শিক্ষিত এবং উত্সাহিত করতে আকাঙ্খা করি। স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহারকে একটি নিয়মিত অভ্যাস হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করুক।”

এই জনহিতকর কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয় সম্মানিত ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে যারা সামাজিক প্রতি বিশেষ ছাপ ফেলেছেন বাংলার প্যাডম্যান এবং সমাজকর্মী শ্রী শোভন মুখার্জি, আঞ্চলিক যোগ অলিম্পিয়াড ২০২৩ বিজয়ী “দ্য ফিটনেস ওয়ান্ডার”, শ্রীমতি প্রকৃতি চক্রবর্তী, বিখ্যাত সঙ্গীত রচয়িতা ও কলকাতা কোয়ারের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য শ্রী কল্যাণ সেন বারাত।

অনুষ্ঠানে অন্যান্য বিশিষ্ট অতিথিরাও উপস্থিত ছিলেন জীবন সাহা, কাউন্সিলর, কেএমসি ওয়ার্ড – ৫৭ এবং শ্রী অয়ন চক্রবর্তী, টাকির সভাপতি হাউস বয়েজ এবং কাউন্সিলর, কেএমসি ওয়ার্ড – ২৮।

এই প্রচারাভিযানটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং সংস্থানগুলিতে তাদের অ্যাক্সেস নিশ্চিত করার মাধ্যমে অল্পবয়সী মেয়েদের জীবন এবং সম্ভাবনার উন্নতির দিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের প্রতিনিধিত্ব করে। সোলেস গ্রুপ অফ্ কোম্পানীজ্ মাসিকের স্বাস্থ্যবিধি ব্যবস্থাপনা এবং শিক্ষার ক্ষেত্রে দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব ফেলতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

সোলেস গ্রুপ অফ্ কোম্পানীজ্হ ল একটি ISO 9001:2015 প্রত্যয়িত সংস্থা যা চাপের সামাজিক এবং জনস্বাস্থ্য সমস্যা সমাধানের জন্য নিবেদিত। মানবহিতৈষী এবং সম্প্রদায়ের উন্নয়নে দৃঢ় প্রতিশ্রুতি সহ, সংস্থাটি সমাজে একটি ইতিবাচক এবং দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব তৈরি করতে চায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *