পাঁচমিশেলিফিল্মি বার্তামহানগর বার্তা

সৌরভ-দর্শনার চার হাত এক হল বিবাহ বন্ধনে

নিউজ ডেস্ক: এই মুহূর্তে বাংলার বিনোদন জগতে চলছে সাতপাকে বাঁধা পড়ার মরসুম। বলা যেতে পারে প্রেমের মরশুম কাটিয়ে এখন টলি অভিনেত্রীরা বাধা পড়ছেন তাদের ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে। এই তালিকা নেহাত কম নয় পরমব্রতা থেকে শুরু করে গতকাল সাত পাকে বাঁধা পড়লেন সৌরভ দাস।

দিনক্ষণ আগে থেকেই বলা ছিল। সেই মতো ১৫ ডিসেম্বর সাত পাকে বাঁধা পড়লেন সৌরভ দাস এবং দর্শনা বণিক। দক্ষিণ কলকাতার একটি ব্যাঙ্কোয়েটে বসেছিল তাঁদের বিবাহ বাসর। দীর্ঘদিন প্রেমের পর অবশেষে তাঁদের প্রেম নতুন ধাপে পা দিল। পর্দার প্রেম এবার বাস্তবের সিলমোহর পেল।

এদিন গোলাপে সাজানো হুডখোলা গাড়িতে বিয়ে করতে আসেন সৌরভ দাস। অভিনেতার পোশাক ছিল সাদা পঞ্জাবি এবং ধুতি। সঙ্গে নিয়েছিলেন লাল জারদৌসি ওড়না। অন্যদিকে বধূ বেশে দর্শনা বণিককে দেখতে লাগছিল অনবদ্য। সেজেছিলেন একেবারেই সাবেকি সাজে। লাল টুকটুকে বেনারসি মধ্যে ছিল রুপোর জরির ওপর সোনার জল করা কাজ। একেবারেই বনেদি ঘরানার সাজে সেজেছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিল ম্যাচিং ব্লাউজ এবং গা ভর্তি সোনার গয়না। সঙ্গে মাথায় শোলার মুকুট, দু হাতে মেহেন্দিও দেখা যায়।

এদিন পিঁড়িতে নয়, বরং একাই হেঁটে মঞ্চে আসেন দর্শনা। পান পাতা ঢেকে ঘোরেন সৌরভকে। তারপরই শুভদৃষ্টির আগে একটু নেচেও নেন আনন্দে। শুভদৃষ্টিতে স্ত্রীকে দেখেই চেঁচিয়ে ওঠেন সৌরভ। মালাবদল সেরেই স্ত্রীকে জড়িয়ে ধরেন তিনি। অন্যান্য সমস্ত নিয়ম আচার পালন করার পর রীতি মেনেই সৌরভ দর্শনাকে সিঁদুর পরিয়ে দেন। সিঁদুর পরিয়ে টেনে দেন লজ্জাবস্ত্র।

বন্ধু, বান্ধব, আত্মীয়দের সামনেই সুসম্পন্ন হল সৌরভ-দর্শনার বিয়ে। প্রকাশ্যে এল তাঁদের সিঁদুরদান থেকে বিয়ের অন্যান্য আচারের ছবি। সিঁদুরদানের পর লাল রঙের লজ্জাবস্ত্রে মুখ ঢেকে লাজুক মুখে সৌরভের পাশে বসে থাকতে দেখা যায় অভিনেত্রীকে।

সৌরভ দর্শনার বিয়েতে এদিন এসেছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় সহ টলিউডের একাধিক রথী মহারথীরা। ছিলেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসও। মেনুতেও ছিল এলাহি আয়োজন। বসেছিল নহবত। গান, সুর, মন্ত্রে বাঙালি রীতিনীতি মেনে সৌরভ, দর্শনার চার হাত এক হল এদিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *