পলিটিক্সমহানগর বার্তারাজ্য বার্তা

ইডি তল্লাশির পর সুজিত বসু সাংবাদিক বৈঠক করে বিঁধলেন শুভেন্দুকে

নিউজ ডেস্ক: পুর নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডের জেরে শুক্রবার দিনভর দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুর বাড়িতে তল্লাশি চালান কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা ইডি আধিকারিকরা। রাত প্রায় আটটার কিছু পরেই তারা বেরিয়ে যান।

গোয়েন্দারা বেরিয়ে যেতে মায়ের পায়ে ফুল দিয়ে, মা কালীকে পুজো করে সাংবাদিক বৈঠক করতে বসেন বিধাননগরের বিধায়ক। সেই বৈঠকে সুজিত বসু পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে বলেন, ‘আমি, আমার স্ত্রী, আমার ছেলে এবং মেয়ে ইডি-র সব প্রশ্নের জবাব দিয়েছি৷ ৪৫ বছর রাজনীতি করছি৷ কাউন্সিলর হয়েছি, বিধায়ক হয়েছি৷ যে ঘটনার সঙ্গে আমি যুক্ত না, যোগাযোগ নেই, সেই ঘটনায় নাকি আদালতের নির্দেশে তদন্ত হচ্ছে যে আর্থিক তছরূপের সঙ্গে নাকি আমাদের যোগ আছে৷ যদি কাজের ক্ষেত্রে কেউ সুজিত বসুকে এক পয়সা দিয়ে থাকে, আজকেই মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পদত্যাগ পত্র পাঠিয়ে দেব৷’

তাঁর গোটা সাংবাদিক বৈঠকে বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে যেন রাগে ফুঁসছিলেন সুজিত। এদিন সুজিতের বাড়িতে যখন তল্লাশি শুরু হয়, তখন শুভেন্দু তাঁর টিপিকাল স্টাইলে বলেন, ব্যাগপত্র-শীতের পোশাক গুছিয়ে রাখুন। এই শীতে জেলে থাকতে হবে।

এই প্রসঙ্গে সুজিত বলেন, ‘হ্যাঁ শীতের পোশাক গুছিয়ে রাখছি। চার দিন গঙ্গাসাগরে থাকব। কিন্তু তুমি যে তোয়ালা পেঁচিয়ে টাকা নিয়েছিলেন, তোমার চুরির কী হবে? কবে তোমাকে ধরবে ইডি-সিবিআই’। এখানেই তা থেমে শুভেন্দুকে ‘গারল’ বলেন দমকল মন্ত্রী। সেই সঙ্গে বলেন, আয়নায় নিজের মুখটা কি দেখেছ?

সুজিতের কথায়, ‘আমি আবারও বলছি ইডি অফিসারদের কোনও দোষ দেব না। ওঁরা যা যা প্রশ্ন করেছেন, তার উত্তর দিয়েছি। আমার ছেলে, মেয়ে, স্ত্রীও সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। তাঁরা আবার ডাকলে যাব।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *