জাতীয় বার্তাপলিটিক্স

রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন

নিউজ ডেস্ক: লোকসভার নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতেই রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড করা হল তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েনকে। রাজ্যসভার চেয়ারম্যান জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে বচসায় জড়ান তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। সেই কারণে ডেরেককে রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড করলেন ধনকড়।

বৃহস্পতিবার রাজ্য সভায় অধিবেশন শুরু হলে তৃণমূল সাংসদ ডেরেক বলেন,বুধবার লোকসভায় অধিবেশন চলাকালীন সময় ২ জন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি ঢুকে পড়ে। তাঁরা অধিবেশন চলাকালীন সময় লোকসভার গ্যালালি থেকে ঝাঁপ মারে। তাঁরা সংসদের মধ্যে হলুদ ধোঁয়া ছড়াতে থাকে। এই ঘটনায় সংসদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ডেরেক ও’ব্রায়েন।

আর তাতেই রাজ্যসভার চেয়ারম্যান জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে বচসায় জড়ান তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। রাজ্যসভার স্পিকার তাঁকে বহিষ্কার করেন। ধনখড় বলেন, “এটি একটি লজ্জাজনক ঘটনা। সতর্কবার্তা সত্ত্বেও ও’ব্রায়েন এবং অন্যান্য বিরোধী সাংসদরা বিক্ষোভ চালিয়ে যান রাজ্যসভায়। তাই তৃণমূল সাংসদকে বহিস্কার করা হয়েছে।” পাশাপাশি রাজ্যসভার চেয়ারম্যান ১৩ই ডিসেম্বর লোকসভায় হামলার ঘটনা নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে উচ্চকক্ষে উপস্থিত থাকার দাবি জানান।

লোকসভায় এই ঘটনা নিয়ে তৃণমূলের তরফে প্রশ্ন করা হয়েছে,’সাংসদের লগ ইন আইডি এবং পাসওয়ার্ড শেয়ার করার অভিযোগে যদি তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রকে সংসদ থেকে বরখাস্ত করা হতে পারে তবে বুধবার লোকসভার ভেতরে এই ঘটনার জন্য কেন মহীশূরের বিজেপি সাংসদ প্রতাপ সিমহাকে বরখাস্ত করা হবে না।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *