খেলার বার্তাপলিটিক্সরাজ্য বার্তা

ওয়েস্ট বেঙ্গল দিব্যং ক্রিকেটে অ্যাসোসিয়েশন – শূন্য থেকে শুরু করে আজ মহীরুহ

নিউজ ডেস্ক: প্রায় বছর দশেক আগে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলার কিছু বিশেষ ভাবে সক্ষম তরুণ, যাদের শারীরিক সক্ষতা 40% ন্যুনতম, তারা স্বপ্ন দেখেছিলো ক্রিকেট খেলায় অংশগ্রহণ করার। সেই সময় পশ্চিমবঙ্গের এক মাত্র স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে তাঁরা যোগ দিয়েছিল।

তারপর সেখানকার সংস্থার অসহযোগিতা,অস্বচ্ছতা খেলার ব্যাবস্থা না করা এবং সর্বপরি নিজেদের খরচে বিভিন্ন জায়গায় খেলতে যাওয়া এইসব কারণে খেলতে সেই ভাবে অংশগ্রহণের সুযোগ পায় না তারা। পরে নিজেদের প্রচেষ্টাতেই তারা গঠন করেন ওয়েস্ট বেঙ্গল দিব্যং ক্রিকেটে অ্যাসোসিয়েশন।

২০১৮ সালে এক প্রকার নিজেদের উদ্যোগেই বা বলা যেতে পারে একপ্রকার ভিক্ষা করে রানাঘাটে মাঠে আয়োজন করলেন আন্ত:রাজ্য ত্রিদলীয় ক্রিকেট প্রতিযোগিতা। সেটি সফল হল তখন তারা নতুন উদ্যোগে এগিয়ে চলতে লাগল। সমর্থন আদায় করে নিল বিশিষ্ট নাগরিকদের। তারপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাদের।

২০১৯ সালে আন্তর্জাতিক সিরিজ বাংলাদেশের সাথে আয়োজন করলেন। বিভিন্ন সংস্থা, প্রাক্তন ক্রীড়াবিদ , শুভাকাঙ্ক্ষীদের সহযোগিতায় সফলতার সাথে সিরিজ জয় করে নজির সৃষ্টি করলেন। এরপর থেমে না থেকে প্রতিবছর বিভিন্ন রাজ্যকে আমন্ত্রণ জানিয়ে একের পর এক ক্রিকেট সিরিজ আয়োজন করে দেশের মধ্যে নজির গড়লেন।

তাদের এই চলার পথ ভীষণ কঠিন ছিল,কিছু ঈর্ষাকাতর মানুষ বিভিন্ন ভাবে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেও তাঁদের দমাতে পারেনি ।তাঁদের জেদ,নিষ্ঠা এবং সততার জোরে আরও শক্তিশালী হয়েছেন ।বর্তমানে তারা বিদেশ সফর করেছেন, পুনরায় আন্তর্জাতিক সিরিজ আয়োজন করেছেন এবং সদ্য ত্রিদলীয় সিরিজ সম্পন্ন করেছেন সেখানে দিব্যং ক্রিকেটে প্রাইজ মানি দিয়েছেন 46 হাজার টাকা যা আজ পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের কোন সংস্থা দিতে পারেনি। আজ সংস্থা বড় হয়েছে খেলোয়াড়ের সংখ্যা বৃদ্ধি হয়েছে তাদের যাওয়া আসা অনুশীলন করা থাকা খাওয়া সবই সম্ভব হয়েছে কিছু মানুষের অবদানে।

সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা অভিজিৎ বিশ্বাস যিনি নিজে ভারতীয় দিব্যং খেলোয়াড় অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন এই খেলাটিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে এবং এমন কিছু মানুষকে পাশে পেয়েছেন যাঁদের অবদান সত্যিই অনস্বীকার্য যেমন মৌমিতা চক্রবর্তী (প্রাক্তন ক্রিকেটার) , দীপ্তিমান চট্টোপাধ্যায় , সুদীপ্ত ভট্টাচার্য, ফিরোজ খান ( সকলেই কর্পোরেট সংস্থার কর্ণধার) সুমন দেবনাথ (ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট) অনন্যা মিত্র (বিসিসিআই ম্যাচ রেফারী), Jmk Sports, Vision Sports, Vishal Prasad, ARSALAN. Suzalam প্রবীর বৈরাগী প্রমূখকে।

আগামী সেপ্টেম্বর ২৪ তারিখ তারা বারাণসীতে খেলতে যাচ্ছেন উত্তর প্রদেশ এবং দিল্লির সাথে, এর আগেও 2020 এবং 2021 সালে এইখানে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বেঙ্গল টিম। Avishek Dalmiya তাদের এই সাফল্যে উচ্ছসিত হয়ে C.A.B -র মাধ্যমে তাঁদের ক্রিকেট কীট প্রদান করেছেন। বর্তমান যারা বারাণসীতে খেলতে যাচ্ছেন তারা হলেন

(1)Ritam Sarkar(C) (2) Dipankar Mallick(VC) (3) Tapan Bairagi (4) Suman Dey (5) Mahesh kr shaw (6)Purnab oraw (7) Shib Shankar Giri (8) Abhijit Biswas (9) Bimal Mahato (10) Faruk Abdullah (11) Rohit Gupta (12) Sukumar Mahato (13) Rakesh Madhu (14) Debashish sadhukhan

Head coach – Prabir Gomes

Asst.Coach- Vivek sinha

Manager- Barun Singh

Support staff – Givinda Jaysawal

Team coordinator – Hirak kanti shil.

 

West Bengal Divyang Cricket Association website: www.wbdivyangcrick.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *